আলোর সেতার ভ্রমণ গাইড

কেদাহ এর রাজধানী আলোর সেতার উত্তরাঞ্চলে অবস্থিত মালয়েশিয়ার প্রাচীনতম সালতানাতের অন্যতম। মালয় ভাষায় আলোর সেতার এর অর্থ হলো ছোট ঢেউ। আলোর সেতার আধুনিক অবকাঠামো এবং শপিং কমপ্লেক্স সমৃদ্ধ একটি ব্যস্ত শহর এবং বর্তমানে মালয়েশিয়ার চাল ও রাবার ব্যবসার প্রাণকেন্দ্র। মালয়েশিয়ার পরিবেশবান্ধব শহরগুলির অন্যতম এই শহর এর পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার জন্য গর্বিত।

আলোর সেতার আসার উপায়

স্থলপথে

মালয়েশিয়া-থাইল্যান্ড সীমান্ত পথ ধরে সিঙ্গাপুরের দিকে যাওয়া উত্তর-দক্ষিণ এক্সপ্রেসওয়ে দিয়ে পর্যটকদের জন্য কেদাহ পর্যন্ত যাওয়ার সুযোগ রয়েছে যদি তারা কার ভাড়া করেন, ট্যাক্সি ক্যাব ডাকেন অথবা মালয় উপদ্বীপের বাস কোম্পানীর কোন বাসে ওঠেন। আলোর সেতারগামী বাসগুলি অন্যান্য শহরগামী বাসের মত শীতাতপনিয়ন্ত্রণহীন নয়। আপনি বাসে যাওয়ার জন্য যদি মনস্থ করেন তবে মালয়েশিয়ার বিভিন্ন শহরের বাস টার্মিনাল থেকে টিকিট নিয়ে নিতে পারেন। আলোর সেতার যাওয়ার জন্য আপনার জন্য ট্রেন ভ্রমণেরও ব্যবস্থা রয়েছে কেরেটাপি তানাহ মেলাইয়ু বরহাদ (কেটিএমবি) রেল কোম্পানীর সৌজন্যে যা আপনাকে কেন্দ্রীয় ব্যবসায় কেন্দ্রে নিয়ে যাবে। ট্রেনের টিকেট আপনি সরাসরি অথবা অনলাইনে ক্রয় করতে পারেন।

বিমানপথে

সুলতান আব্দুল হালিম বিমানবন্দর আধুনিকতম একটি বিমানবন্দর যা আলোর সেতার শহর থেকে ১৫ কি.মি. দুরে অবস্থিত। এখন পর্যন্ত এই বিমান বন্দর শুধুমাত্র আভ্যন্তরীণ ফ্লাইট পরিচালনা করে আসছে মালয়েশিয়ান এয়ারলাইনস এবং এয়ার এশিয়ার সৌজন্যে।

সমুদ্র পথে

কুয়ালা কেদাহ জেটি থেকে যাত্রীবাহী ফেরীর ব্যবস্থা রয়েছে এবং লাঙ্গকাউয়ি পর্যন্ত নিয়মিত ফেরী চলাচল করে। যাহোক, জেটিটি আলোর সেতার থেকে ২৫ কি.মি. দুরে অবস্থিত সুতরাং শহরে যেতে আপনাকে বাস অথবা ট্যাক্সি ধরতে হবে।

আলোর সেতারে থাকবার ব্যবস্থা

আমার গত আলোর সেতার ভ্রমণের সময় আমি আলোর সেতার সেরি মালয়েশিয়া হোটেলে একটি হোটেল রুম ভাড়া করেছিলাম।

আলোর সেতারের প্রধান আকর্ষণসমূহ

মিনারা আলোর সেতার
শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত বিশিষ্ট চিহ্নবাহী মিনারা আলোর সেতার শহরের এবং সারা কেদাহ রাজ্যের দ্রুত উন্নতির প্রতীক সেইসাথে এটা টেলিযোগাযোগ টাওয়ার হিসেবেও ব্যবহৃত হচ্ছে। দর্শনার্থীগন এই টাওয়ারে চড়তে পারেন এবং সমগ্র আলোর সেতার শহরের শ¦সরোধকরা দৃশ্য দেখতে পারেন।

জহির মসজিদ

জহির মসজিদ কেদাহ এর রাষ্ট্রীয় মসজিদ এবং এটা শহরের একটি স্থাপত্য কীর্তি। মুরিশ স্থাপত্য রীতিতে নির্মিত এই মসজিদ মালয়েশিয়ার সর্ববৃহত ও প্রধানতম মসজিদ এবং এখানে কেদাহ এর বার্ষিক কোরআন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। আপনি যদি এই মসজিদ ভ্রমণের পরিকল্পনা করে থাকেন তাহলে আপনাকে শহরের ধর্মীয় বিভাগ থেকে অনুমতি নিতে হবে এবং সেসাথে আপনাকে নির্ধারিত পোষাক পরতে হবে। বালাই নোবাত হলো কেদাহ এর রাজকীয় অর্কেস্ট্রা ব্যবহৃত বাদ্যযন্ত্রের উতসভুমি। এই বাদ্যযন্ত্রগুলি এতই বিশিষ্ট ও ভাবগম্ভীর যে এগুলি শুধু রাজকীয় অনুষ্ঠানাদি যেমন কোন কোম্পানী উদ্বোধন, বিবাহ ও শেষকৃত্য ইত্যাদি অনুষ্ঠানে বাজানো হয়।

বালাই বেসার

এটা কেদাহ এর ‘গ্রেট হল’ নামে পরিচিত, এর কাঠামো কেদাহ ও থাইল্যান্ডের মধ্যে দীর্ঘদিন স্থায়ী ঐতিহাসিক ও সাংস্কৃতিক সম্পর্কের পরিচয় বহন করে।

রাজকীয় যাদুঘর

এক সময়ের কেদাহ সুলতানদের রাজকীয় প্রাসাদ এই রাজকীয় যাদুঘর এখন কেদাহ সালতানাতের বিভিন্ন নৃতাত্বিক সম্পদের সংরক্ষণাগার সেসাথে রাজকীয় শিল্প গ্যালারীতে পরিণত হয়েছে যেখানে পেইন্টিংস, আলোকচিত্র, প্রাচীন নিদর্শন এবং সালতানাতের ঐতিহ্যবাহী ললিতকলা ও শিল্পের নিদর্শন রয়েছে। অধিকন্ত্ত, এখানে সালতানাতে থাই প্রভাবের বিভিন্ন সংগ্রহ রয়েছে যার মধ্যে মূলতঃ বুজং ভ্যালীর প্রাচীন হিন্দু-বৌদ্ধ সভ্যতার ঐতিহ্যবাহী নিদর্শন রয়েছে।

মহাথিরের জন্বস্থান

প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী ড. মহাথির মোহাম্মদ যিনি ১৯২৫ সনের ১০ জুলাই জন্বগ্রহন করেন তাঁর জন্বস্থান হলো কামপুং সেবেরাং পেরাকের একটি বাড়ী।

Read more:
পুত্রজায়া ভ্রমণ গাইড

মালয়েশিয়ার ফেডারেল সরকারের রাজধানী হিসেবে কুয়ালা লামপুরের জায়গায় পুত্রজায়াকে বেছে নেয়া হয় দেশের অর্থনীতি দ্রুত চাঙ্গা হয়ে ওঠার পর। কুয়ালা Read more

পেনাং ভ্রমণ গাইড

প্রাচ্যের মুক্তা’ হিসেবে পরিচিত পেনাং এশিয়ার বিখ্যাত দ্বীপ গন্তব্যের অন্যতম যেখানে আছে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য, জাকজমকপূর্ণ ঐতিহ্য, মহান আতিথেয়তা এবং প্রাচুর্য। Read more

জহর বাহরু ভ্রমণ গাইড

জহর বাহরু হলো দেশের দক্ষিণে অবস্থিত মালয়েশিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর। এই শহর মালয়েশিয়ার অন্যান্য বৈশিষ্টমন্ডিত শহর ও রাজ্যের সাথে তুলনীয় Read more

enEnglish deGerman arArabic zh-hansChinese (Simplified) viVietnamese